Thursday , November 26 2020
Image: google

শীঘ্রই বন্ধ হচ্ছে করন জোহর, সালমান ও আলিয়া ভাটের সকল ছবি!

শীঘ্রই বন্ধ হচ্ছে করণ করন জোহর, সালমান ও আলিয়া – ১৪ জুন তারিখটা যেন বলিউড তথা গোটা দেশের কাছে একটা কালো দিন হিসাবে চিহ্নিত হয়ে আছে। দুপুর বেলা খবর পাওয়া যায় ‘ত্মহত‍্যা করেছেন সুশান্ত সিং রাজপুত।

অনেকেরই প্রথমে বিশ্বাস হয়নি খবরটা। এখনও অনেকেরই মন ভারাক্রান্ত হয়ে রয়েছে। সুশান্তের মৃ’ত‍্যুর পর বলিউড ইন্ডাস্ট্রির নানা লুকনো দিক প্রকাশ‍্যে এসেছে। ইন্ডাস্ট্রির নেপোটিজম, ‘বুলিং’ এইসব বিষয় চর্চায় উঠে এসেছে। বহু তারকাই মুখ খুলেছেন বিষয়গুলি নিয়ে। অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াত, পরিচালক অভিনব সিং কাশ‍্যপ সোশ‍্যাল মিডিয়ায়

নিজেদের ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন।ক্ষোভের আগুন জ্বলছে বলিউড তারকা সুশান্ত সিং রাজপুতের জন্মস্থান বিহারের পাটনায়। দিনকে দিন সেটা যেভাবে বাড়ছে, তাতে বিহার রাজ্যে নিষিদ্ধ হতে পারেন স্বজনপ্রীতির অভিযোগে বিদ্ধ বেশ কয়েকজন বড় তারকা। তার মধ্যে সামনের দিকে আছেন সালমান খান, আলিয়া ভাট ও করণ জোহর। বেশ কিছু

সংবাদমাধ্যম কথা বলেছে সুশান্তের ভক্তদের সঙ্গে। তাদের দাবি যতক্ষণ না বলিউডে ‘স্বজনপ্রীতি’ বন্ধ হচ্ছে, তাদের প্রতিবাদ চলবে। পাশাপাশি তারা চান রাজ্যে যেন নিষিদ্ধ করা হয় অভিযুক্ত তারকাদের, যাদের কারণে পরোক্ষভাবে মৃত্যুর দুয়ারে পৌঁছেছেন তাদের রাজপুত। ইতোমধ্যে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে সালমান খানের ফ্যাশন প্রতিষ্ঠান বিয়িং হিউম্যানের

শোরুমগুলো। নিষিদ্ধ করতে চান এই তিন তারকার সব চলচ্চিত্রও। সলিল মিশ্র নামের এক প্রতিবাদকারী বলিউড হাঙ্গামাকে বলেন, ‘আমরা সালমানের কোনো কিছু এই বিহার রাজ্যে মেনে নেব না। তার দোকান বিয়িং হিউম্যান কোনো কাপড় এই রাজ্যে বিক্রি করতে পারবে না। তার কোনো ছবি এখানে প্রদর্শিত হতে পারবে না।’ একই কথা বলা হচ্ছে,

আলিয়া ভাট ও করণ জোহরদের বেলায়ও। সম্প্রতি জানা গিয়েছে, সুশান্তের শেষ ছবি দিল বেচারা মুক্তি পাবে অনলাইন প্ল‍্যাটফর্মে। এই খবর প্রকাশ‍্যে আসতেই ফের সমালোচনা শুরু হয়েছে বিভিন্ন মহলে। সুশান্ত অনুরাগীরা ছবির নির্মাতাদের

কাছে অনুরোধ জানিয়েছেন সুশান্তের শেষ ছবি বড়পর্দায় রিলিজ করতে। এটা প্রয়াত অভিনেতার প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করা হবে।

About By Editor

Check Also

ভালোবাসার টানে ১ সন্তানের মা ভারত থেকে চলে আসলেন বাংলাদেশে

ভালোবাসার টানে ১ সন্তানের মা ভারত থেকে চলে আসলেন বাংলাদেশে- প্রেম মানে না কোনো বাঁধা, …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *