Image: google

মাত্র ৩ ফুট উচ্চতা নিয়ে আজ তিনি IAS অফিসার, বহু ব’ঞ্চনা মাথায় নিয়ে সাফল্যের শিখরে

মাত্র ৩ ফুট উচ্চতা নিয়ে আজ তিনি IAS অফিসার, বহু ব’ঞ্চনা মাথায় নিয়ে সাফল্যের শিখরে – রূপ নয়, গুনই সব শুধু কথাতেই রয়ে গিয়েছে, আজও মানুষ প্রথমে বাহ্যিক রূপ দেখেই তার গুণের প্রতি আকর্ষিত হয়। সমাজের সেইসব মানুষের মুখ বন্ধ করে উদাহরণ হয়ে উঠল

উত্তরাখণ্ডের আরতি। মাত্র তিন ফুঁট উচ্চতা নিয়ে রাজস্থান ক্যাডারের আইএএস অফিসার হয়ে ওঠেন আরতি। বাহ্যিক রূপে কিছু খামতি থাকলে তাকে নিয়ে সমাজের কূটকাচালি চলতেই থাকে। আরতির উচ্চতা নিয়ে হাসাহাসির অন্ত ছিল না কারোরই, এমনকি দেখা হতো

বৈ’ষম্যের চোখে। সমস্ত অ’পমানের যোগ্য জবাব হয়ে নজির গড়েছে উত্তরাখণ্ডের বাসিন্দা আরতি ডোগরা। আরতি ডোগরা এখন রাজস্থান ক্যাডারের আইএএস অফিসার পদে নিযুক্ত হলেন। শা’রীরিক উচ্চতা কম হলেও আরতির স্বপ্নের উচ্চতা কম ছিল না। গোটা দেশের রোল

মডেল আরতিকে তার বাবা মা সব সময় সাহস জুগিয়েছেন। আরতির বাবা রাজেন্দ্র ডোগরা সে’নার একজন অফিসার আর মা কুমকুম ডোগরা একজন স্কুল শিক্ষিকা। আরতির জন্মের সময়েই ডাক্তাররা বলে দিয়েছিলেন যে, সে বাচ্চাদের সাথে সাধারণত বাচ্চাদের মত বড় হবে না। আর

তা হওয়াতে সমাজ তাকে নিয়মিতভাবে ব’ঞ্চনা করেছে। আরতির বাবা মা আরতির পাশে থেকে সব রকম পরিস্থিতিতে সাহস জুগিয়েছে তাকে। আরতির বাবা মা’র ইচ্ছে তাদের এই সন্তানই তাদের সব স্বপ্ন পূরণ করবে। মা বাবার সেই স্বপ্ন পূরণ করেছে আরতি। সেই আরতি আর

আরতির নাম এখন সকলে জানে এমনকি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীও পছন্দ করেন তাঁকে। আরতি নিজের ডিউটিতে অনেক বড় বড় কাজ করেছেন। আরতি কোন মানুষকেই অ’ছ্যুত হিসেবে দেখেননি, তার কাছে সবাই সমান। আরতি বলে, সে যে ব’ঞ্চনা ছোট বেলায় সহ্য করেছেন, সেই বঞ্চ’নার শিকার আর কাউকে হতে দেবেন না।

About By Editor

Check Also

ভালোবাসার টানে ১ সন্তানের মা ভারত থেকে চলে আসলেন বাংলাদেশে

ভালোবাসার টানে ১ সন্তানের মা ভারত থেকে চলে আসলেন বাংলাদেশে- প্রেম মানে না কোনো বাঁধা, …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *