Image: google

ভুলেও এই ৪টি কথা কাউকে বলতে যাবেন না! তাহলে সারা জীবন পস্তাতে হবে

ভুলেও এই ৪টি কথা কাউকে বলতে যাবেন না! তাহলে সারা জীবন পস্তাতে হবে -চানক্যের বানী ভীষন যুক্তিসংগত এবং আমাদের জীবনে কার্যকর ।তবে প্রশ্ন আসতেই পারে যে চানক্য কে ছিলেন? চানক্য একজন প্রাচীন ভারতীয় অর্থনীতিবিদ ,দার্শনিক ও রাজ উপদেষ্টা ।প্রাচীন তক্ষশিলা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি ও রাষ্ট্রনীতি অধ্যাপক ছিলেন তিনি।

তিনি মৌর্য সাম্রাজ্যের চন্দ্রগুপ্ত মৌর্য্যের উত্থানের প্রধান ভূমিকা পালন করেছিলেন।চানক্যের নীতি কথা গুলি অত্যন্ত সত্য এবং এ যুগেও অবিচল। তার কিছু বানী হল-
1। মনের বাসনাকে দূরীভূত করা উচিত নয় এই বাসনাকে গানের গুঞ্জনের মতোন কাজে লাগানো উচিত ।
2। অতি পরিচয়ে দোষ ঢাকা যায় না।

3। অধমেরা ধন চাই,মধ্যমেরা ধন ও মান এবং উত্তমেরা শুধু মান চাই ।মানই মহতের ধন।
4। অহংকারের মতোন শত্রু নেই।
5। আকাশে উড়ন্ত পাখির গতিও জানা যায়না।প্রচ্ছন্নপ্রকৃতি কর্মীর গতিবিধি জানা সম্ভব নয় ।

6। ধর্মের চেয়ে ব্যবহার বড়ো।
7। পুত্র যদি হয় গুনবান,পিতামাতার কাছে তা স্বর্গসমান।
চানক্য কিছু কথা বলেছেন যা বুদ্ধিমান ব্যক্তিরা কখনই সকলের সামনে প্রকাশ করেনা।আর নিজের শান্তি বজায় রাখতে এ কথা গুলি কখনোই সর্বসম্মুখে আত্মীয় পরিজনদের বলা উচিত না, ব্যক্তিগত রাখাই উচিত ।

জেনেনিন সেই ৪ টি কথা যা ভুলে বলেও নিজের বিপদ ডেকে আনবেন না। আর দেরি নয় চলুন জেনে নেওয়া যাক –

১। ব্যক্তিগত সমস্যা -কখনো নিজের ব্যক্তিগত সমস্যা বাইরের কাউকে বলবেন না। কারন বেশীরভাগ ক্ষেত্রেই মানুষ ওপরে সান্ত্বনা দিলেও পিঠ পিছু আপনার সম্পর্কে বাজে কথা বলেন বা আপনাকে সমস্যাই দেখে আনন্দিত হন।কারন কথাতেই আছে অন্যের সুখের চেয়ে অন্যকে দুখী দেখে মানুষ মনেমনে খুশিই হয়।ফলে সমস্যার সমাধান তো হয়ই না বরং বৃদ্ধি পায়।
২। ব্যবসা সংক্রান্ত কথা-আপনার ব্যবসার লোকসান কিংবা আপনার হার পতনের কথা বা টাকা পয়সা সংক্রান্ত কোনো কথা অন্যদের বলবেন না কারন এতে মানুষ আপনারকে আশ্বাস তো দেবে কিন্তু সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেবেনা বরং পাত্তা দেবেনা আর আপনার অবস্থা নিয়ে পিছনে ঠাট্টা তামাশাও করতে পারেন।মনে রাখবেন নিজের পরিশ্রমই একমাত্র চাবিকাঠি যা আপনাকে বর্তমান সমস্যা থেকে মুক্তি দিতে পারে ।

৩। চরিত্র বিশ্লেষণ -নিজের স্ত্রীর ওপর ক্ষোভে বা রাগের মাথায় বন্ধুদের সামনে তার চরিত্র বিশ্লেষণ করতে যাবেননা কারন পরে আপনার স্ত্রীর সঙ্গে ভুল বোঝাবুঝি মিটে গেলেও কেউ এটিকে ভুল ভাবে নিয়ে পরে অন্যদের জানিয়ে দেবে যাতে আপনার স্ত্রীর অসম্মান হবে
৪। অপমান-নিজের অপমান হওয়ার ঘটনা কারো সঙ্গে শেয়ার করা উচিত না এতে কেউ নিজের সুযোগে আপনাকে অপদস্ত করতে পারে। জেনে বুঝে সঙ্গী,বন্ধু নির্বাচন করুন তারসঙ্গে এই কথাগুলি মাথায় রেখে চললে কোনো ঝামেলায় পড়তে হবেনা এবং আঘাতও কম পাবেন। এই তথ্যগুলি অবশ্যই আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করবেন, আপনিও জানুন তাদেরকেও জানান, শেয়ার করুন।নীচের আর্টিকেল টা ক্লিক করুন ;পড়লে চোখ কপালে উঠবে।

About By Editor

Check Also

ভালোবাসার টানে ১ সন্তানের মা ভারত থেকে চলে আসলেন বাংলাদেশে

ভালোবাসার টানে ১ সন্তানের মা ভারত থেকে চলে আসলেন বাংলাদেশে- প্রেম মানে না কোনো বাঁধা, …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *