Thursday , November 26 2020
Image: google

বি’ষাক্ত মিথানল মেশানো হ্যান্ড স্যানিটাইজারে ছেঁয়ে গেছে বাজার! সর্তক করল CBI

বিষাক্ত মিথানল মেশানো হ্যান্ড স্যানিটাইজারে ছেঁয়ে গেছে বাজার!- সিবিআই সূত্রে খবর, সম্প্রতি কয়েকটি চক্র সক্রিয় হয়েছে, যারা মিথানল মেশানো হ্যান্ড স্যানিটাইজার বাজারে সরবরাহ করছে। মিথানল শরীরের পক্ষে মারাত্মক ক্ষতিকারক।

স্যানিটাইজার ব্যবহার করছেন তো করোনা সংক্রমণ আটকাতে? কিন্তু দেখে নিচ্ছেন তো, আপনার স্যানিটাইজার স্বাস্থ্যসম্মত কি না। বাজারে তদন্ত চালিয়ে তেমনটাই সম্ভাবনা দেখছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। সব রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিকে সতর্ক করে সিবিআই জানিয়েছে, বাজারে এমন কিছু জাল ও বিষাক্ত স্যানিটাইজার পাওয়া যাচ্ছে, যা

শরীরের পক্ষে অত্যন্ত বিপজ্জনক। সিবিআই সূত্রে খবর, সম্প্রতি কয়েকটি চক্র সক্রিয় হয়েছে, যারা মিথানল মেশানো হ্যান্ড স্যানিটাইজার বাজারে সরবরাহ করছে। মিথানল শরীরের পক্ষে মারাত্মক ক্ষতিকারক। এই চক্রগুলি নিজেদের পিপিই বা ওষুধ সরবরাহকারী সংস্থা হিসেবে প্রচার করছে। সিবিআইয়ের দাবি, এইসব হ্যান্ড স্যানিটাইজারে মেশানো

থাকছে বিষাক্ত রাসায়নিক। বিভিন্ন রাজ্যের পুলিশকেও এই বিষয়ে সতর্ক করেছে সিবিআই। করোনা পরিস্থিতিতে দ্রুত অর্থ উপার্জন করার জন্যই বিষাক্ত স্যানিটাইজার স্থানীয় বাজারগুলিতে ছড়িয়ে দিচ্ছে ওই গ্যাংগুলি। এদের প্রতিনিধিরা কেউ কেউ স্থানীয় হাসপাতালগুলির সঙ্গে যোগাযোগ করছে স্যানিটাইজার সরবরাহ করার উদ্দেশে। এদের বিরুদ্ধে এমন

অভিযোগও উঠছে যে, বিভিন্ন হাসপাতাল ও ক্রেতার থেকে অনলাইনে অগ্রিম টাকা নিয়েও জিনিস সরবরাহ করা হচ্ছে না। এর আগে মহারাষ্ট্র থেকেও জাল স্যানিটাইজার প্রস্তুতকারক সংস্থা ধরা পড়ে পুলিশের জালে।

মানব শরীরের পক্ষে ভিটামিন সি-র গুরুত্ব অন্য সব ভিটামিনের থেকে বেশি। মহিলাদের প্রতিদিন ৭৫ মিলিগ্রাম ভিটামিন সি সেবন করা উচিত, পুরুষদের পক্ষে পরিমাণটা ৯০ মিলিগ্রাম। বিশেষজ্ঞদের মতে, প্রতিদিনের খাবারের অনেকটা জায়গা জুড়ে থাকে ভিটামিন সি। এই ভিটামিন রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা যাতে ঠিকমত থাকে তা নিশ্চিত করে। তবে

চিকিৎসকদের পরামর্শ, ভিটামিন সি সাপ্লিমেন্ট হিসেবে গ্রহণ করার বদলে রোজকার খাবারে গ্রহণ করুন। অর্থাৎ বেশি করে খান ফলমূল আর সবজি। ভিটামিন সি শক্তিশালী অ্যান্টি অক্সিডেন্ট। ঋতু পরিবর্তনের জেরে যে সর্দি-জ্বর হয়ে থাকে, তার সঙ্গে দারুণ লড়তে পারে। নিয়মিত তা সেবন করলে দ্রুত কমে যাবে সর্দি-জ্বর, রোগে ভুগবেনও আগের

থেকে কম। এই ভিটামিন সোয়াইন ফ্লু সহ শ্বাস সংক্রান্ত নানা সমস্যা প্রতিরোধ করতে পারে। চিনের এক পত্রিকা দাবি করেছে, করোনা রোগীদের হাই ডোজে ভিটামিন সি ইঞ্জেকশন দেওয়া হয়েছে। প্রতিদিন অল্প অল্প করে বাড়ানো হয়েছে মাত্রা। এর ফলে ফুসফুস ভাল কাজ করছে। তবে এখনও ভিটামিন সি দিয়ে করোনা চিকিৎসা শুরু হয়নি, কারণ এর সাফল্যের ব্যাপারে সম্পূর্ণ প্রমাণ এখনও আসেনি।

About By Editor

Check Also

ভালোবাসার টানে ১ সন্তানের মা ভারত থেকে চলে আসলেন বাংলাদেশে

ভালোবাসার টানে ১ সন্তানের মা ভারত থেকে চলে আসলেন বাংলাদেশে- প্রেম মানে না কোনো বাঁধা, …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *