Image: google

ফুসফুস ভালো রাখার জন্য ২টি সহজ পদ্ধতি

ফুসফুস ভালো রাখার জন্য ২টি – মানবদেহের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গগুলির মধ্যে একটি হলো ফুসফুস। ফুসফুস আমাদের শ্বাস-প্রশ্বাস, রক্তে অক্সিজেন প্রবেশ, কার্বন-ডাই অক্সাইড নির্গমনসহ দেহের অনেক জরুরি কাজ করে থাকে।

তাই ফুসফুস ভালো রাখা সবাই কর্তব। কিন্তু কিভাবে ভালো রাখবেন জানেন না? তাহলে জেনেনিন দুই সহজ পদ্ধতি যা আপনার ফুসফুসকে ভালো রাখতে সাহায্য করবে। চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক –

১-শ্বাস গোনার ব্যায়াম আপনাকে সবার প্রথমে মেরুদন্ড সোজা করে বসতে হবে। তারপর আপনাকে চোখ বন্ধ করে গভীর শ্বাস-প্রশ্বাস নিতে হবে । ধীরে ধীরে এর গতি কমে আসবে। এটি এক ধরনের মেডিটেশন বা ধ্যান। এই ব্যায়ামটি ধীরে ধীরে করারও কিছু নিয়ম আছে।

প্রথমবার প্রশ্বাস ছাড়ার সময় এক গুনবেন, এর পরের বার দুই….এভাবে পাঁচ পর্যন্ত। তার পর আবার নতুন করে এক দিয়ে শুরু করবেন।

২-বেলো ব্রিদিং এই ব্যায়ামের মূল কাজ হলো নাক দিয়ে শ্বাস প্রশ্বাস নেওয়া। এই ব্যায়ামটি করার সময় আপনি মুখ বন্ধ করে প্রতি সেকেন্ডে ৩বার করে শ্বাস নেওয়া ও ছাড়ার চেষ্টা করুন। এর পর কিছুক্ষণ স্বাভাবিক শ্বাস-প্রশ্বাস নিন।
১৫ সেকেন্ডের বেশি নয়। এই ব্যায়াম ক্লান্তি কমিয়ে কর্মস্পৃহা ও উদ্যম বাড়াবে।

নিয়ম মেনে খাওয়া-দাওয়া করার পাশাপাশি কয়েকটি বিশেষ খাবার খেলে ফুসফুসের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে।

পেঁয়াজ ও রসুন: এসব উপাদান প্রদাহের প্রবণতা কমায়, সংক্রমণের বিরুদ্ধে লড়াই করার শক্তি জোগায়। ‘জার্নাল অব ক্যানসার এপিডেমিওলজি’ ও ‘বায়োমার্কারস অ্যান্ড প্রিভেনশন’-এ প্রকাশিত প্রবন্ধে বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, যে সব ধূমপায়ী নিয়মিত কাঁচা রসুন খান তাদের ফুসফুসের বিভিন্ন অসুখে ভোগার আশঙ্কা প্রায় ৪০ শতাংশ কমে যায়।

আদা: এতে থাকা অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরী উপাদান প্রদাহ কমায়। অল্প করে আদা কুচি নিয়মিত খেলে ফুসফুসের স্বাস্থ্য ভাল থাকে।
কাঁচা মরিচ : নিয়মিত কাঁচা মরিচ খেলে রক্ত সঞ্চালন ভালো হয়,সংক্রমণের আশঙ্কা কমে। হলুদ: হলুদে থাকা কারকিউমিন প্রদাহ কমায়।
ফল ও শাকসবজি: আপেল, পেয়ারা, শসা, সফেদা এই সব ফল ফুসফুসের জন্য উপকারী। আপেল ও বাতাবি লেবুতে থাকা ফ্ল্যাভেনয়েড ও ভিটামিন সি ফুসফুসের কার্যকারিতা বাড়ায়।

সবজি: গাজর, কুমড়া, বেল পেপারে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও ভিটামিন সি ফুসফুসের কর্মক্ষমতা বাড়ায়। বিভিন্ন ধরনের
শিম ও বীজ: বিভিন্ন ধরনের শিম ও বীজে থাকা ম্যাগনেশিয়াম ফুসফুসের কার্যকারিতা বাড়াতে কার্যকর ভূমিকা আছে। তিসির বীজে থাকা ভিটামিন ই, বাড়ায় রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। এসব ছাড়া ফুসফুস ভালো রাখতে পর্যাপ্ত পানি পান ও নিয়মিত ব্যায়ামের ওপর গুরুত্ব দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

About By Editor

Check Also

ভালোবাসার টানে ১ সন্তানের মা ভারত থেকে চলে আসলেন বাংলাদেশে

ভালোবাসার টানে ১ সন্তানের মা ভারত থেকে চলে আসলেন বাংলাদেশে- প্রেম মানে না কোনো বাঁধা, …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *