Tuesday , November 24 2020
Image: google

পাল্টে যাবে আপনার ভাগ্য! এই মন্ত্রটি কাগজে লিখে ঠাকুর ঘরে রেখে দিন ১ মাস

ভাগ্য পাল্টাতে এই মন্ত্রটি কাগজে লিখে ঠাকুর ঘরে রেখে দিন ১ মাস – পারিবারিক জীবনে বিভিন্ন অশান্তি লেগেই আছে। আজ এই নিয়ে ঝামেলা তো কাল ওই নিয়ে। সবমিলিয়ে অধিকাংশেরই পারিবারিক জীবন বিপাকে। অন্যদিকে এমনটা চাননা কেউই। সবাই চায় সুখী গৃহকোণ পরিবারের সদস্যদের মধ্যে সুসম্পর্ক। কিন্তু তাও কোথাও না কোথাও আমাদের গাফিলতি থেকেই বিভিন্ন অশান্তির সূত্রপাত ঘটে।

আর পারিবারিক কলহের জেরে মন মেজাজ তরতাজা না থাকলে কাজে মন বসেনা। পড়ুয়া হলে পড়াশুনাতেও যথেষ্ট ক্ষতি হয়। বাধ্য হয়ে আমরা তখন দোষারোপ করতে থাকি নিজের ভাগ্যকে। দিনের শেষে ক্লান্তি, হতাশায় গ্রাস করলে দুষতে থাকে নিজেকেই নিজে। তারপর যারা শাস্ত্রে, জ্যোতিষে বিশ্বাসী তারা ভাগ্য ফেরানোর জন্য কত চেষ্টাই না করেন।

কেউবা নামিদামি জ্যোতিষের কাছে যান পরামর্শ নিতে। কথামত বহুমূল্যের পাথর ধারণ থেকে শুরু করে কোনো চেষ্টাই বাদ রাখেন না তারা। কিন্তু সেখানেও ঝামেলা অনেক কারণ জ্যোতিষদের মধ্যে ভন্ডামি তাদের পরামর্শে আশানুরুপ ফল না পাওয়ার আশঙ্কা সবই থাকে। এছাড়াএ মধ্যবিত্ত অথবা গরিব শ্রেণীর মানুষরা জ্যোতিষের পর্যাপ্ত পারিশ্রমিকই পাবে কোথায় আর বহুমূল্যের রত্ন ধারণের জন্য প্রয়োজনীর অর্থও তাদের কাছে নেই?

তবে তাদের ভাগ্য ফেরানোর উপায়? আছ। নিজের ভাগ্যের উপর থেকে শনির নজর কাটিয়ে তুলতে কিংবা দুষ্ট গ্রহের প্রভাব বিনাশ করার জন্য সহজসাধ্য উপায় একটিই। আর এই উপায় বাতলাতে পারেন সমস্ত শ্রেণীর মানুষই। উপায়টি খুব সাধারণ হলেও অজানা অনেকেরই। আসুন দেখে নিই কি সেই উপায় যা আপনাকে দূর্ভাগ্যের পথ থেকে মুক্তির উপায় বার করে দেবে। উপায়টি আর কিছুই নয় গায়েত্রী মন্ত্র। প্রায় সকলেই যানে এই মন্ত্র।

তবে গায়ত্রী মন্ত্র জপ নয়। আপনাকে একটি কাগজে লিখতে হবে মন্ত্রটি এবং লিখে সেই কাগজে কিছু গাঁধা ফুল ছিটিয়ে , ফুল সমেত কাগজটি মুড়ে ফেলে রাখতে হবে মা দূর্গার মূর্তি বা ছবির সামনে। ঠাকুরঘড়ে সাধারণত ছবিই থাকে তাই ছবির সামনেই ফেলে রাখা যেতে পারে। যেহেতু আমরা যানি দেবী দূর্গাকে দূর্গতিবিনাশিনী বলা হয়, তাই এই গায়ত্রী মন্ত্রই ফিরিয়ে আনবে আপনার সৌভাগ্য। তবে, কিছু নিয়ম আছে নিশ্চই।

আপনাকে কাগজটি অন্তত একমাস রাখতে হবে দেবী দূর্গার সামনে, তার আগে কাগজটি আপনি অশুদ্ধ কাপড়ে কখনই ছোঁবেন না এবং একেবারেই খুলবেন না। “ওঁ ভূর্ভুবঃ স্বঃতৎ সবিতুর্বরেণ্যং ভর্গো দেবস্য ধীমহি ধিয়ো য়ো নঃ প্রচোদয়াৎ।”- গায়ত্রী মন্ত্র

About By Editor

Check Also

ভালোবাসার টানে ১ সন্তানের মা ভারত থেকে চলে আসলেন বাংলাদেশে

ভালোবাসার টানে ১ সন্তানের মা ভারত থেকে চলে আসলেন বাংলাদেশে- প্রেম মানে না কোনো বাঁধা, …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *