Image: google

চা বিক্রেতার মেয়ে আজ বায়ু সেনার পাইলট!

চা বিক্রেতার মেয়ে আজ বায়ু সেনার পাইলট!- ইচ্ছে থাকলে উপায় হয়। এই ইচ্ছেশক্তি ও পরিশ্রমের জোরেই চা বিক্রেতা সুরেশ গঙ্গবালের মেয়ে আজ বায়ুসেনার পাইলট। ইন্ডিয়ান এয়ারফোর্স অ্যাকাডেমিতে থাকাকালীন মেয়ের পড়াশোনার খরচ

জোগাড় করা দু:সাধ্য হয়ে উঠত চাওয়ালা বাবর কাছে। লম্বা কষ্টের একটা যাত্রাপথ কাটিয়ে মেয়ে আঁচল গঙ্গবাল আজ সফল। নিজের স্বপ্ন পূরণের লক্ষ্যে কোনও বাধাই যে বাধা নয়, তা আরও একবার প্রমাণ করল ২৪ বছরের আঁচল। ভোপাল থেকে ৪০০ কিলোমিটার দূরে প্রতত্ন নিমুচ জেলা থেকে উঠে এসেছে এই মেয়ে। বাবা বাস স্ট্যান্ডের চা

বিক্রেতা। ওই দিয়েই সংসার চলে। নিজেই জানিয়েছেন বহুবার মেয়ের স্কুল কলেজে ফিস দিতে হিমশিম খেতে হয়েছে তাঁকে। অনেক সময় হাত পাততে হয়েছে অন্যের কাছে। কিন্তু আজ তিনি খুশি। ২০০৩ সালে কেদারনাথ ঘটনায় সেনার ভূমিকা প্রভাব ফেলে আঁচলের মনে। মেধাবী আঁচল বইয়ের দোকান থেকে খোঁজ নেয় কীভাবে বায়ুসেনার অংশ হওয়া যায়।

তারপর লড়াই আর লড়াই। টানা পাঁচবার ব্যর্থ হওয়ার পর ষষ্ঠবারে সুযোগ পায় নিমুচের চাওয়ালার ওই মেয়েটি। ডুন্ডিগল এয়ারফোর্স অ্যাকাডেমি থেকে বায়ূসেনার ফ্লায়িং অফিসার হয়ে উঠেছে আঁচল। মেয়ের সেনায় অন্তর্ভুক্তি করোনার কারণে স্বচক্ষে দেখতে পাননি বাবা-মা। তার আক্ষেপ একটু আছে কিন্তু আনন্দটাই বেশি। মেয়ের স্বপ্ন সত্যি হওয়ায় জিতে

গিয়েছেন বাবা। তিনি আজ সবচেয়ে গর্বিত বাবা। মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান টুইট করে আশীর্বাদ ও শুভ কামনা করেছেন আঁচলের জন্য। তিনি লিখেছেন, “চা বিক্রেতা বাবার মেয়ে আঁচল গোটা মধ্যপ্রদেশকে গর্বিত করেছে। এবার দেশের গর্ব ও সম্মান ধরে রাখতে আকাশের উঁচুতে উড়বে।”

About By Editor

Check Also

ভালোবাসার টানে ১ সন্তানের মা ভারত থেকে চলে আসলেন বাংলাদেশে

ভালোবাসার টানে ১ সন্তানের মা ভারত থেকে চলে আসলেন বাংলাদেশে- প্রেম মানে না কোনো বাঁধা, …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *