Wednesday , November 25 2020
Image: google

আগামীকাল রবিবার ভোরে খালি চোখে দেখা যাবে ৫ টি বিরল গ্রহ!

আগামীকাল ভোরে খালি চোখে দেখা যাবে ৫ টি বিরল গ্রহ!- আগামীকাল রোববার দিনটিকে বিস্ময়কর বলা হচ্ছে। কারণটাও বিস্ময়কর, কেননা মহাজাগতিক এক ঘটনার সাক্ষী হতে চলেছে বিশ্ববাসী। মানুষ খালি চোখে দেখতে পারবে বিশ্বব্রহ্মাণ্ডের পাঁচটি গ্রহকে! ভারতীয় গণমাধ্যম

সংবাদ প্রতিদিন দিয়েছে এ তথ্য। তাদের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কাল রোববার চাঁদের সঙ্গে আরও পাঁচটি গ্রহকে দেখা যাবে। শত কোটি মাইল দূরের গ্রহগুলো দেখতে টেলিস্কোপের দরকার হবে না। একদম খালি চোখে মানুষ গ্রহগুলো দেখতে পাবে। বুধ, শুক্র, মঙ্গল, বৃহস্পতি ও শনি- এ পাঁচটি গ্রহ দেখা যাবে কাল ভোরে। গবেষকরা বলছেন,

সূর্য ওঠার অন্তত এক ঘণ্টা আগে থেকে আকাশের দিকে তাকিয়ে থাকতে হবে। যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সংবাদমাধ্যম সিনেট বলছে, মহাকাশ গবেষক জেফরি হান্ট তাদের জানিয়েছেন, রোববার ভোরে পাঁচটি গ্রহকে নক্ষত্রের মতো জ্বলজ্বল করতে দেখা যাবে। উত্তর-উত্তরপশ্চিম দিকে থাকবে বুধ গ্রহ, শুক্র থাকবে পূর্ব-উত্তরপূর্ব আকাশের নিচের দিকে। মঙ্গলকে একাকী দেখা যাবে দক্ষিণ-পূর্বে। বৃহস্পতি ও শনি গ্রহকে দক্ষিণ-পশ্চিমে দেখা যাবে। ২০২২ সালের জুন মাসেও নাকি আবার এ দৃশ্য দেখা যাবে বলে দাবি করেছেন গ্রহ-নক্ষত্র নিয়ে গবেষণাকারীরা।চারটি উজ্জ্বল গ্রহ

শুক্র, মঙ্গল, শনি এবং বৃহস্পতির সন্ধান করুন। তাদের চেহারা পূর্বের তুলনায় অতিরিক্ত উজ্জ্বল দেখাবে। শুক্র গ্রহ কে উত্তর পূর্ব থেকে একটু কম উজ্জ্বল দেখাবে। মঙ্গল দক্ষিণ-পূর্বের একাকী ‘তারা’, এবং বৃহস্পতি এবং শনি দক্ষিণ-পশ্চিমের তারার মতো দেখাবে। আপনার দৃষ্টিতে এগুলিকে মহাকাশ যানের মাধ্যমে তোলা ছবির মত নয় বরং মাত্রাতিরিক্ত উজ্জ্বল দেখাবে”। তবে বুধ নামক গ্রহটিকে স্পট করা সবচেয়ে

কঠিন হতে পারে। কারণ এটি অন্যান্য গ্রহের মতো উজ্জ্বল নয় এবং এটিকে চিহ্নিত করার জন্য দূরবীন যন্ত্রের প্রয়োজন হতে পারে, বলে জানিয়েছেন বিজ্ঞানীরা।কীভাবে গ্রহগু/লিকে চিহ্নিত করা যায় তার পরামর্শ প্রদান করে হান্ট জানিয়েছেন যে শুক্র পূর্বের আকাশে উজ্জ্বল এবং দৃশ্যমান হবে। অন্যদিকে চাঁদ, কেবল ১ শতাংশ আলোকিত আকাশের পূর্ব-উত্তর-পূর্ব অংশে কম থাকবে। বুধটি চাঁদের ডানদিকে দেখা যায়

এবং মঙ্গল দক্ষিণে দক্ষিণ-পূর্ব দিকে আকাশে প্রায় অর্ধেক উপরে থাকবে। বৃহস্পতিটি দক্ষিণ-পশ্চিমে দিগন্তের ঠিক উপরে থাকবে এবং শনি বৃহস্পতির উপরের বাম দিকে থাকবে। দিকনির্দেশ সম্পর্কে নিশ্চিত নন এমন লোকেরা সর্বদা গুগল স্কাইয়ের মতো অনলাইনে উপলব্ধ অ্যাপ্লিকেশনগুলির সহায়তা নিতে পারেন। এই অ্যাপ্লিকেশনগুলি গ্রহ-নক্ষত্রের স্থান স্পষ্টভাবে তুলে ধরবে। উত্তর ও দক্ষিণ গোলার্ধে এই

মহাজাগতিক দৃশ্য দেখা যাবে। হান্ট বলেছেন, ” প্রত্যেক দিনের মতন সকালে প্রতিদিন তিন থেকে চার মিনিট আগে দেখুন। আপনি ২৫ শে জুলাই পর্যন্ত পাঁচটি গ্রহকে একসাথে দেখতে পাবেন”।

About By Editor

Check Also

ভালোবাসার টানে ১ সন্তানের মা ভারত থেকে চলে আসলেন বাংলাদেশে

ভালোবাসার টানে ১ সন্তানের মা ভারত থেকে চলে আসলেন বাংলাদেশে- প্রেম মানে না কোনো বাঁধা, …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *